ভূঞাপুরে ৯৭০ বোতল ফেনসিডিলসহ প্রাইভেটকার উদ্ধারের ঘটনার আসামী গ্রেফতার

0
368

কোরবান আলী তালুকদার, ভূঞাপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের খানুরবাড়ী এলাকার ফেরিঘাট থেকে ৯৭০ বোতল ফেনসিডিলসহ প্রাইভেটকার উদ্ধারের ঘটনার পলাতক আসামী মোঃ সুমন সরকার (৩৩) কে গ্রেফতার করেছে ভূঞাপুর থানা পুলিশ। মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) রাতে বগুড়া জেলার সদর থানার নামাজ গড় নামক এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত মোঃ সুমন সরকার নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ থানার খামার গাড়াগ্রাম গ্রামের মোঃ অহিদুল ইসলামের ছেলে।

ভূঞাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ রাশিদুল ইসলাম জানান, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি -২০২০ ইং সকাল ৯.৪৫ টায় উপজেলার গোবিন্দাসী ইউনিয়নের খানুরবাড়ী গ্রামের মৃত গাদু আকন্দের ছেলে ফরিদ উদ্দিনের বাড়ীর পিছনে ফেরিঘাট হতে ৯৭০ বোতল ফেনসিডিলসহ একটি সাদা রংয়ের প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়। কিন্তু ফেনসিডিল বহনকারী প্রাইভেটকারের চালক পালিয়ে যায়। উক্ত ঘটনায় ভুঞাপুর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। দীর্ঘদিনের প্রচেষ্টার পর তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হই়। গ্রেফতারকৃত আসামীর বিরুদ্ধে একাধিক মাদক মামলা রয়েছে। আসামীকে গত বুধবার (৯ সেপ্টেম্বর) টাঙ্গাইল বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি-২০২০ ইং সকাল ৯.৪৫ টায় উত্তরাঞ্চল থেকে ছেড়ে আসা বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব পাড় গোলচত্বর এলাকা দিয়ে প্রাইভেটকারটিতে বিশেষ কায়দায় ফেনসিডিল বহন করার সময় আটক করা হয়। বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব পাড় গোলচত্বর এলাকায় কর্তব্যরত সার্জেন্ট ওয়ালিদ প্রাইভেট কারটিকে দেখে সন্দেহ করে। সে প্রাইভেট কারটিকে সিগন্যাল দিলে চলার গতি কমাতে শুরু করে কিন্তু কাছে আসার সাথে সাথেই কারটির গতি বাড়িয়ে চলে যায়। সাথে সাথেই মোটরসাইকেল নিয়ে দ্রুত তার পিছু নেয় এবং তাড়া করে। তাড়া খেয়ে গোবিন্দাসীর ফেরিঘাটে প্রাইভেটকারটি রেখে চালক দ্রুত পালিয়ে যায়।

কোরবান আলী তালুকদার
ভূঞাপুর উপজেলা প্রতিনিধি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here